বাবুগঞ্জে গাছ খেঁকো আ.লীগ নেতা হারুন ! Latest Update News of Bangladesh

বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
Latest Update Bangla News 24/7 আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] অথবা [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




বাবুগঞ্জে গাছ খেঁকো আ.লীগ নেতা হারুন !

বাবুগঞ্জে গাছ খেঁকো আ.লীগ নেতা হারুন !




অনলাইন ডেস্ক:
বাবুগঞ্জে বন বিভাগের রোপিত প্রায় প্রায় ৩০ হাজার টাকার গাছ রাতের আধাঁরে কেঁটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, বাবুগঞ্জ উপজেলার রহমতপুর ইউনিয়নের বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতুর দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্ত থেকে রামপট্রি গ্রামের প্রায় ১ কিলোমিটার সংযোগ সড়কে উপজেলা বন বিভাগের প্রায় ২ যুগ পূর্বের রোপিত বিভিন্ন প্রজাতির বনজ ও ঔষধি গাছ রোপন করা হয়।

ঔ গাছের দিকে কু-দৃষ্টি পরে স্থানীয় প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা হারুন-অর রশিদ প্রধান’র। তিনি গত শুক্রবার গভীর রাতে ৭/৮জন লোক নিয়ে বন বিভাগের রোপিত প্রায় ৩০ হাজার টাকা মূল্যের মেহেগনি গাছ কেটে স্থানীয় মন্টু সিকদারের স্ব-মিলে নিয়ে যায়। এঘটনা স্থানীয়রা টের পেয়ে উপজেলা বন বিভাগকে অবহিত করেন। পরে উপজেলা বন কর্মকর্তা আঃ সালাম জোমাদ্দার ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ জব্দ করে স্ব-মিলের মালিক মন্টু সিকদারের জিম্মায় গাছ রেখে আসেন। এ সময় বন কর্মকর্তা স্থানীয় ও স্ব-মিল মালিকের মাধ্যমে নিশ্চিত হন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ হারুন-অর রশিদ প্রধানের নেতৃত্বে বন বিভাগের এ গাছ আত্মসাতের উদ্দেশ্যে রাতের আধাঁরে কর্তন করেন।

এ বিষয়ে বাবুগঞ্জ উপজেলা বন কর্মকর্তা আঃ সালাম জোমাদ্দার জানান, সরকারী গাছ বিনা অনুমতিতে রাতের আধাঁরে আত্মসাতের কর্তনের দায়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা হারুন-অর রশিদ প্রধানসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানায় হারুন প্রধানের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও লক্ষাধিক টাকার সরকারী গাছ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে এয়ারপোর্ট থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ আবদুর রহমান মুকুল জানান এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares