রমজান ও তারাবীহ নামাজের গুরুত্ব ও তাৎপর্য (বিষয়: যাকাত) Latest Update News of Bangladesh

শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
Latest Update Bangla News 24/7 আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] অথবা [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




রমজান ও তারাবীহ নামাজের গুরুত্ব ও তাৎপর্য (বিষয়: যাকাত)

রমজান ও তারাবীহ নামাজের গুরুত্ব ও তাৎপর্য (বিষয়: যাকাত)




ধর্ম ডেস্ক: মাহে রমজানের সওগাতঃ মাহে রমজনের সিয়াম সাধনার মাধ্যমে একজন রোজদার মুমিন বান্দার দানশীলতা ও বদান্যতার গুনাবলী সৃষ্টি হতে পারে। আত্মীয় স্বজনের মধ্যে যারা আত্ম মর্যাদা সম্পন্ন অথবা দরিদ্র ও অভাবগ্রস্থ তারা প্রকাশ্যে সাহায্যে চাইতে লজ্জাবোধ করলেও তাদের থেকে দান আরম্ভ করা অপরিহার্য। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা:- বর্ননা করেছেন রাসূল (সা:) সমগ্র মানবকুলের মধ্যে সর্বাধিক উদার ও দানশীল ছিলেন। রমজান মাসে যখন হযরত জিব্রাঈল (আ:) নিয়মিত আসতে শুরু করতেন, তখন মহানবী (স:) এর দানশীলতা বহুগুনে বেড়ে যেত। (বুখারী ও মুসলিম)

যাকাত আরবি শব্দ, এর অর্থ পবিত্রতা লাভ করা, বৃদ্ধি পাওয়া, প্রাচুর্যতা, আধিক্যতা প্রশংসা করা, গুনকৃতন করা। ইসলামী শরয়ীয়াতে এর অর্থ জমহুর উলামাদের মতে- নেসাব পরিমান সম্পদ কারো ব্যক্তি মালিকানায় এক বছর থাকার পর তা থেকে নির্দিষ্ট আটটি খাতে ২.৫% হারে যে সম্পদ আদায় করা আল্লাহ তায়ালা ফরয করেছেন তাকেই যাকাত বলা হয়। বস্তুত যাকাত সম্পদশালিদের সম্পদে আল্লাহর নির্ধারিত সেই ফরজ অংশ যা সম্পদও আত্মার পবিত্রতা অর্জন। সম্পদের ক্রমবৃদ্ধি সাধন, এবং সর্বোপরি আল্লাহর রহমত লাভের আশায় নির্ধারিত খাতে ব্যয় বন্ঠন করার জন্য দেয়া হয়।

যাকাত একদিকে যাকাতদাতার ধন সম্পদকে পবিত্র ও পরিশুদ্ধ করে, এর প্রবৃদ্ধির সাধন করে, অন্যদিকে দরিদ্রের আর্থিক নিরাপত্তাও নিশ্চিত করে। যাকাতের প্রবৃদ্ধি ও পবিত্রতা কেবল ধন মালের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয় বরং যাকাত দানকারীর মন মানসিকতা ও ধ্যান ধারনা পর্যন্ত তা পরিব্যপ্ত হয়। এ সম্পর্কে মহান আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন- তোমরা সালাত কায়েম কর ও যাকাত আদায় কর। তোমরা উত্তম কাজের যা কিছু পূর্বে প্রেরন করবে আল্লাহর নিকট তা পাবে। তোমরা যা কর নিশ্চয়ই আল্লাহ তার দ্রষ্টা। (সূরা আল- বাকারা ২:১১০)

এখানে একটি কথা মনে রাখতে হবে যে, যাকাত গরীবের জন্য দান, অনুগ্রহ বা করুনা নয়। এটি কোন ঐচিছক বিষয় বা ইবাদত নয়। বরং ধনীদের যাকাত প্রদান যেমন অধিকার তেমনি গরীবের জন্যেও ন্যায্য প্রাপ্য অধিকার। ইমাম নববী বলেছেন- যাকাত দ্বিতীয় হিজরীতে মদীনায় ফরজ হয়েছে।

যাকাত কার উপর ফরজঃ ইসলামী আইনবীদগণের মতে যাকাত কেবলমাত্র মুসলিম, স্বাধীন, পূর্ণবয়স্ক, নেসাব পরিমান সম্পদের মালিক এর উপর যাকাত আদায় করা ফরজ।

লেখা: মাওলানা মোহাম্মদ আমির হোসেন তালুকদার, অধ্যক্ষ, কাউনিয়া বালিকা আলিম মডেল মাদ্রাসা, বরিশাল।

চলবে…

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD