কলাপাড়ায় জোয়ারে পানিতে ১৫০ গ্রাম পানিবন্দী |

শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.voiceofbarishal@gmail.com অথবা hmhalelbsl@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩
সংবাদ শিরোনাম:
স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলো দ্রুত গ্রহণের দাবিতে ববি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন নগরীর চহঠা থেকে বিপুল পরিমান ইয়াবা ও গাজাসহ আটক ১ পুলিশকে সর্বক্ষেত্রে দায়িত্বশীল হতে হবে: বরিশাল ডিআইজি বরিশালে পরীক্ষা নেয়া সহ একদফা দাবীতে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ বিএম কলেজ শিক্ষার্থীরা বরিশালে খালি ট্রলি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে, প্রাণ গেল হেলপারের রাজাপুরে রাস্তা রেখে ইউএনও বহনকারী গাড়ি ময়লা পানিতে পটুয়াখালীর দশমিনায় বৃদ্ধকে বিয়ে না করায় বাড়ি ছাড়া চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী যেখানেই অসহায় মানুষ সেখানেই মানবিক পুলিশ জাহিদ ঝালকাঠিতে এক দোকান কর্মচারীকে হত্যার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন কলাপাড়ায় সাবেক এমপি পুত্রের বিরুদ্ধে জমি দখল করে মাছের ঘের করার অভিযোগ




কলাপাড়ায় জোয়ারে পানিতে ১৫০ গ্রাম পানিবন্দী

কলাপাড়ায় জোয়ারে পানিতে ১৫০ গ্রাম পানিবন্দী




দুই দিনের টানা প্রবল বৃষ্টিতে পায়রা বন্দরসহ কলাপাড়ার গোটা উপকূলীয় জনপদের অন্তত ১৫০ গ্রামের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। চাষের জমি, খাল-বিল, চলাচলের পথ সব পানিতে থৈ থৈ করছে। ডুবে গেছে সকল কৃষকের আমন বীজতলা। সবজি চাষীরা সব হারানোর শঙ্কায় পড়েছেন। পানি নামানোর স্লুইসগেট থাকলেও তা মাছ ধরার লোকজনের নিয়ন্ত্রণে। অভ্যন্তরীণ অধিকাংশ খালে বাঁধ দিয়ে মাছের ঘের করেছে প্রভাবশালীরা। আবার ভাটায় যতটুকু পানি নামছে তা আবার জোয়ারে ঢুকে যাচ্ছে। অধিকাংশরা কৃষক ও জেলে পরিবার। সাগরে মাছ শিকার ও আমনের চাষাবাদ বন্ধ। উপার্জনহীন হয়ে পড়েছেন শ্রমজীবী মানুষ। এক কথায় সব যেন রুদ্ধ হয়ে গেছে।

 

রাবনাবাদ পাড়ের বাঁধ ভাঙ্গা জনপদের আট গ্রামের অন্তত তিন হাজার পরিবারের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। ডোবা-ভাসা নিত্যদূর্ভোগ। তার ওপরে বর্ষার মৌসুম। তারও ওপরে এখন পূর্ণিমার জো চলছে। বাড়িঘর থেকে রান্নার চুলা পর্যন্ত ডোবা। পঞ্চমের মডেল টেস্ট পরীক্ষা দিতে হচ্ছে বৃষ্টিতে ভিজে। নৌকায় চড়ে। এসব পরিবারে সরাসরি রান্না করা খাবার সরবরাহ জরুরি। অন্তত শুকনো খাবার দেয়া প্রয়োজন রয়েছে। একই দশায় নিজামপুর, করমরপুরসহ চারটি গ্রামের। সাধারণ এই মানুষের দুরবস্থার শেষ নেই। অস্বাভাবিক জোয়ারের প্লাবনের পাশাপাশি টানা প্রবল বৃষ্টিতে এখন এই জনপদ গেছে বানের জনপদ হয়ে। দূর্ভোগের ধরন দূর্যোগের মতো। আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে বিশাল এক জনগোষ্ঠীর জীবন-জীবিকায় অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

 

কলাপাড়া আবহাওয়া অফিসসুত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল নয় টা পর্যন্ত গত ৪৮ ঘন্টায় এখানে ১৬৮ মিলিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। যা দুপুর ১২ টায় প্রায় ২০০ মিলিমিটারে পৌছার শঙ্কা করছেন তারা। অঝোর ধারার এই বৃষ্টি আর জোয়ারের ঝাপটা এখন সাগরপাড়ের মানুষকে চরম বিপদগ্রস্ত করে দিয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: তানভীর রহমান জানান, খোঁজ-খবর রাখা হচ্ছে। সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের সতর্ক থেকে সর্বশেষ খবর জানাতে নির্দেশনা রয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares