জলবায়ু পরিবর্তন: ২০ কোটি লোক অনাহারের ঝুঁকিতে Latest Update News of Bangladesh

শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
Latest Update Bangla News 24/7 আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] অথবা [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




জলবায়ু পরিবর্তন: ২০ কোটি লোক অনাহারের ঝুঁকিতে

জলবায়ু পরিবর্তন: ২০ কোটি লোক অনাহারের ঝুঁকিতে




আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সারা বিশ্বেই উষ্ণায়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে। অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলো সবচেয়ে বাজে পরিস্থিতির মুখে পড়ছে। বিশেষত আফ্রিকায় এর প্রভাব ভয়াবহ হতে পারে বলে সতর্ক করছেন বিশেষজ্ঞরা। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে মহাদেশটির ২০ কোটি লোক চরম ক্ষুধার বৃত্তে আটকা পড়তে পারেন বলে সাম্প্রতিক এক গবেষণায় উঠে এসেছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার ইউনিভার্সিটি অব উইটওয়াটারস্র্যান্ডের গবেষক ফিলিপ কফি অ্যাডমের একটি গবেষণা সম্প্রতি সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট স্টাডিতে (সিজিডি) প্রকাশিত হয়েছে।

উন্নয়নশীল দেশগুলো আগামী কয়েক দশকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব কেমন হবে, তা নিয়ে করা এই গবেষণার তথ্য বলছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আগামী কয়েক দশকে শুধু আফ্রিকা অঞ্চলের দেশগুলোয় গড়ে মোট দেশজ উৎপাদন কমবে ৭ দশমিক ১ শতাংশ হারে। শুধু তাই নয় কৃষি উৎপাদন ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কৃষি থেকে এই অঞ্চলে আয় হ্রাস পাবে ৩০ শতাংশ। এতে সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক প্রভাব পড়বে দরিদ্রদের ওপর।

গবেষণা নিবন্ধের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আফ্রিকা অঞ্চলের ২০ কোটি মানুষ অনাহারের ঝুঁকিতে রয়েছে। আর এ ঘটনা ঘটতে পারে আগামী ২০৫০ সালের মধ্যেই। এই সময়ের পর এই নেতিবাচক প্রভাব আরও বাড়বে।

ফিলিপ কফি অ্যাডম বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের মতো সংকটকে ঠিকভাবে গুরুত্ব না দিলে উন্নয়নশীল বিশ্বে, বিশেষত আফ্রিকায় আর্থসামাজিক সংকট তীব্র হবে। এতে গত দশকগুলোয় এ অঞ্চলে হওয়া উন্নয়ন ও প্রাপ্তি শুধু শূন্যই হবে না, অর্থও হারিয়ে ফেলবে।

পরিবেশ–প্রকৃতি বিষয়ক ওয়েবসাইট আর্থ ডটওআরজি এ সম্পর্কিত এক প্রতিবেদনে বলেছে, গবেষণাটিতে মূলত বৈশ্বিক উষ্ণায়ন ও এর ফলে আবহাওয়ার দ্রুত পরিবর্তনের আর্থসামাজিক প্রভাবের দিকে মনোযোগ দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়, এমনকি ক্ষুদ্র মাত্রার তাপমাত্রার পরিবর্তনের (২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের অনেক কম হলেও) ফলে আর্থাসামাজিক যে প্রভাব পড়বে, তার বড় মূল্য চোকাতে হবে তৃতীয় বিশ্বকে।

গবেষণায় দেখানো হয়, চরমভাবাপন্ন আবহাওয়ার কারণে আফ্রিকা অঞ্চলে কৃষি উৎপাদন কমছে। এ ধারা চলতে থাকলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই কিছু কিছু অঞ্চলের মানুষ চরম ক্ষুধার সংকটে পড়বে। মূলত খাদ্যাভাবের কারণেই এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। ২০৩০ সালের মধ্যেই অঞ্চলটিতে কৃষি উৎপাদন ২ দশমিক ৩ শতাংশ কমবে। আর ২০৫০ সাল নাগাদ এই উৎপাদন ১৮ শতাংশ কমে যাবে। ফলে কৃষি জমির মূল্য ৩৬ থেকে ৬১ শতাংশ পর্যন্ত কমে যেতে পারে।

গবেষকরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে কৃষি উৎপাদন হ্রাসের সংকটে পড়বে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলও। বিশেষত যেসব অঞ্চলের কৃষি বৃষ্টিপাতের ওপর নির্ভরশীল, সেসব অঞ্চল সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়বে। এর প্রভাব পড়বে সমাজের নানা স্তরে। মুখ্যত কৃষির সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত শ্রেণিগুলোর মধ্যে দারিদ্র্যের হার বাড়বে উল্লেখযোগ্য হারে। গড়ে ৭ দশমিক ১ শতাংশ জিডিপি হ্রাসের কথা বলা হলেও কোনো কোনো দেশে এটি ১১ থেকে ২৬ শতাংশ পর্যন্তও হতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD