বরিশাল ডাকঘর থেকে ফিক্সড ডিপোজিটের বই চুরির ঘটনায়... |

রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.voiceofbarishal@gmail.com অথবা hmhalelbsl@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




বরিশাল ডাকঘর থেকে ফিক্সড ডিপোজিটের বই চুরির ঘটনায়…

বরিশাল ডাকঘর থেকে ফিক্সড ডিপোজিটের বই চুরির ঘটনায়…

বরিশাল ডাকঘর থেকে ফিক্সড ডিপোজিটের বই চুরির ঘটনায়...




নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বরিশাল বিভাগীয় ডাকঘরের প্রধান কার্যালয় থেকে গ্রাহকের ফিক্সড ডিপোজিটের বই চুরির ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

 

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে ডাকঘর কর্তৃপক্ষ বই চোরকে আটক করে থানা পুলিশকে খবর দিলে কোতয়ালী থানার এসআই রফিকুল ইসলাম এসে অভিযুক্তকে আটক করে নিয়ে যান বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত পোস্ট মাস্টার জয়নুল আবেদীন খান।

 

তিনি জানান, ওই নারী চুরি করা বই দিয়ে টাকা উত্তোলন করার চেষ্টা করছিলেন। এই কাজে তার বােনের মেয়েকেও ব্যবহার করেন। কিন্তু টাকা তুলে নেওয়ার আগেই তাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে।

 

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কােতয়ালী থানার ওসি নুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, বই চুরির অভিযোগে প্রকৃত বইয়ের মা্লিক বাদী হয়ে একজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃতকে বুধবার আদালতে সোর্পদ করা হবে।

 

 

জানা গেছে, মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বরিশাল বিভাগীয় ডাকঘরের প্রধান কার্যালয় থেকে মদিনা আক্তার মিমের (আসল নাম) ফিক্সড ডিপোজিটের তিন লাখ টাকার বই (নম্বর এফডি-১৩২৬৯১) চুরি করে নিয়ে যান ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ঝরণা বেগম (আসল নাম)।

 

এ বিষয়ে ডাকঘর কর্তৃপক্ষ থানায় অভিযোগ না দিতে ভুক্তভোগীকে অনুরোধ করেন ডাকঘর কর্তৃপক্ষ। মুলত ডাকঘর কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব অবহেলায় ওইদিন বই চুরির ঘটনা ঘটে বলে দাবী করেন মদীনা আক্তার। এদিকে মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারী) চুরি যাওয়া বই নিয়ে টাকা তোলার চেষ্টা করেন ঝরনা বেগম (৩২) ও তার বােনের মেয়ে সোহাগী আক্তার শ্রাবনী (আসল নাম)।

 

এসময়ে ডাকঘরের কর্মচারীরা ঝরণা বেগমকে আটক করে থানায় খবর দেন। থানা পুলিশ এসে আটক করে দুজনকে নিয়ে যান। তবে ঝরণা বেগমের বোনের মেয়েকে চুরির কাজে ব্যবহার করলেও সে জানতো না আসলে তিনি কি করছেন। তার খালা তাকে বই জমা দিতে বলায় সে জমা দেয়। এ কারনে তাকে মামলার আসামী করা হয়নি বলে জানান বাদী মদিনা আক্তার মিম।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares