সাদিক আব্দুল্লাহ’র বিরুদ্ধে ৪ মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ |

শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.voiceofbarishal@gmail.com অথবা hmhalelbsl@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




সাদিক আব্দুল্লাহ’র বিরুদ্ধে ৪ মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ

সাদিক আব্দুল্লাহ’র বিরুদ্ধে ৪ মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ




অনলাইন ডেস্ক  || বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। বিএনপি, জাতীয় পার্টি (এরশাদ), বাসদ ও কমিউনিস্ট পার্টির মেয়র প্রার্থীরা এসব অভিযোগ করছেন।

এদিকে পুলিশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ এনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বিএনপি।

জেলা বিএনপির (দক্ষিণ) সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাহিন জানান, নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পুলিশ প্রশাসনকে কাজে লাগানো হচ্ছে। পুলিশ প্রশাসন পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে। ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর সমর্থনে স্লোগান দিয়ে মিছিল মিটিং করলেও বিএনপিকে বাধা দেয়া হচ্ছে। দুপুরে শতাধিক আওয়ামীপন্থী আনজীবীরা মেয়র প্রার্থীর সমর্থনে স্লোগান দিয়ে মিছিল করে। তবে বিএনপির পাঁচজনের অধিক নেতাকর্মী প্রচারণা চালাতে গেলে বাধা দিচ্ছে পুলিশ। পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে রিটার্নিং কর্মকতার কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

জাতীয় পার্টির (এরশাদ) মেয়র প্রার্থী ইকবাল হোসেন তাপস অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সাদিক আব্দুল্লাহর বাবা মন্ত্রী পদ মর্যাদায় রয়েছেন। নির্বাচনকালীন সময়ে নগরীতে জাতীয় পতাকাবাহী গাড়ি ব্যবহার করে প্রভাব বিস্তার করছে। আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর পরিবারকে ঘিরে প্রশাসনের বিরুদ্ধে লেজুরবৃত্তির অভিযোগ করেন জাপা প্রার্থী তাপস।

বাসদের মেয়র প্রার্থী ডা. মনিষা চক্রবর্তী অভিযোগ করেন, বাসদের কর্মী সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। নগরীর স্টেডিয়াম কলোনি ও রসুলপুর বস্তিতে বসবাসরত সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখোনো হচ্ছে। এসব সমর্থকরা তার (বাসদ মেয়র প্রার্থী ডা. মনিষা ) হয়ে প্রচারণায় নামলে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে ক্ষমতাসীন দলের নেতারা।

কমিউনিস্ট পার্টির মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট এ কে আজাদ অভিযোগ করেন, সকালে তিনি ১৫-২০ জন নেতাকর্মী নিয়ে গণসংযোগে বের হলে প্রশাসন তাতে বাধা দেয়। পাঁচজনের বেশি লোক গণসংযোগে থাকতে পারবে না বলে জানান একজন ম্যাজিস্ট্রেট। এ সময় ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে এক দল পুলিশ ছিল । তবে পাশ দিয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থনে বড় একটি মিছিল গেলেও সেদিকে নজর ছিল না প্রশাসনের।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দলের মুখপাত্র অ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল বলেন, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। যে যার মত করে গণসংযোগ ও প্রচারণা চালাচ্ছেন। সরকার বিরোধী দলগুলোর মেয়র প্রার্থীরা শুধু বিরোধিতার স্বার্থে অভিযোগ তুলছে। নৌকা মার্কার জোয়ার দেখে দিশেহারা হয়ে শুধুমাত্র অভিযোগের জন্যই অভিযোগ করছেন তারা। এসব অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই।

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. হেলাল উদ্দিন বলেন , দুপুরে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন অফিসে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। অভিযোগের সত্যতা মিললে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares