নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ তারকারা Latest Update News of Bangladesh

মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
Latest Update Bangla News 24/7 আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] অথবা [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ তারকারা

নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ তারকারা




অনলাইন ডেস্ক:ফেনীর সোনাগাজী পৌরসভার উত্তর চরচান্দিয়া গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাদির কবরের পাশেই শায়িত হলো অধ্যক্ষের যৌন নিপীড়নের বিচার চেয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার শিকার মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি। এর আগে বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) বিকেল ৫টা ৫০ মিনিটে সোনাগাজী মো. সাবের সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয় নামাজের জানাজা। জানাজা পড়ান নুসরাতের বাবা মাওলানা মুসা।জানাজাতে উপস্থিত ছিলেন হাজার হাজার মানুষ। লাশ পৌঁছানোর পরে নুসরাতের বাড়িতে মানুষের ঢল নামে। এদিন শোক স্তব্ধ ছিল নুসরাতের বাড়ির উঠানটি। উপস্থিত মানুষের চোখে-মুখে ছিল শোকের ছায়া।এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নুসরাত হত্যার বিচারের দাবি জানিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। শোবিজ অঙ্গনের তারকারাও সরব প্রতিবাদে। অভিনয়শিল্পী, কণ্ঠশিল্পীসহ অনেকেই তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে নুসরাতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি হত্যাকারীদের ফাঁসি চাইছেন।

রোকেয়া প্রাচী তার স্ট্যাটাসে লিখেন, মানুষ মানুষকে নিয়ে ভালোবাসায় মানবিকতায় একসাথে বসবাস করবে, যদি এর বিরুদ্ধে যেয়ে সভ্যতাকে কেউ ধ্বংস করে, নারী এবং পুরুষের মধ্যে বিরোধ আনে, ধর্ষক হয়, অত্যাচারী হয়, নির্মম নিষ্ঠুর হয়, তবে বিলুপ্তি ঘটুক! মানবিক পৃথিবীতে অমানবিক প্রাণীর নাম কি ইতিহাসে পুরুষ হিসেবেই আখ্যা পাবে? পাক, শেষ হোক এই অধ্যায়…’

ঢালিউড অভিনেত্রী নিপূন তার ফেসবুকে অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা ও একটি ছেলের ছবি পোস্ট করে লিখেন, এইবার ওর গায়ে আগুন ধরিয়ে দিতে হবে!অভিনেতা সাইমন সাদিক তার ফেসবুকে লিখেন, নুসরাতসহ সব ধর্ষকের দ্রুত বিচার ও সর্বোচ্চ শাস্তি আদায় করতে আমরা কী আরো একবার গণজাগরণ তৈরি করতে পারি না? মনে রাখবেন, দাবি আদায়ের আন্দোলন রাস্তায় হয়, ফেসবুকে নয়। অনিশ্চিত মৃত্যুর বিভীষিকা আর সহ্য হচ্ছে না— ফাঁসি, ফাঁসি, ফাঁসি চাই।অভিনেতা জায়েদ খান তার ফেসবুকে লিখেন, ক্ষমা করে দিও নুসরাত তোমাকে আমরা বাচাঁতে পারলাম না।’ চঞ্চল চৌধুরী লিখেন, ‘নুসরাতের জন্য শোক, নুসরাতের জন্য প্রার্থনা, নুসরাতের জন্য প্রতিবাদ, দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।অভিনেত্রী জয়া আহসান তার ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি পরিবর্তন করে মৃত নুসরাতের ছবি দিয়েছেন। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর তার ফেসবুক পেজে লিখেন, নুসরাত …ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

কণ্ঠশিল্পী সন্দীপন ফেসবুকে লিখেছেন, নুসরাত, আহ কি ফুটফুটে দেবশিশু চলে গেল, আহ বুকের গহীনে বড্ড যন্ত্রণা অনুভব করছি..ওঁর গায়ের দগদগে পোড়া গুলোর মতোই অন্তর পুড়ে খাক হয়ে যাচ্ছে। আর কত। উফ নিতে পারছি না।নাট্যকার মাসুম রেজা লিখেছেন, নুসরাতকে বাঁচানোর জন্যে সব ব্যবস্থা নিয়েছিলেন আপনারা। তাকে বাঁচানো যায়নি। এবার শুধু এই ব্যবস্থাটুকু করেন যাতে ইতিহাসের দ্রুততম সময়ে লোলুপ সিরাজুদ্দৌলাদের বিচার হয়। নুসরাত জানতো তার এই পরিণতি হতে পারে তারপরেও সে সিরাজুদ্দৌলাকে কঠিন শাস্তি দিতে চেয়েছিলো। নুসরাত আত্মহত্যার পথ পরিহার করে আত্মদান করে গেলো। এ যেনো ভুলে না যাই।উল্লেখ্য, গত শনিবার সকালে আলিম পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসায় যান নুসরাত জাহান রাফি নামের ওই ছাত্রী। মাদরাসার এক ছাত্রী তার বান্ধবী নিশাতকে ছাদের উপর কেউ মারধর করছে- এমন সংবাদ দিলে রাফি ওই বিল্ডিংয়ের চার তলায় যান।

সেখানে মুখোশ পরা চার-পাঁচ ছাত্রী তাকে অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে মামলা ও অভিযোগ তুলে নিতে চাপ দেয়। রাফি অস্বীকৃতি জানালে তারা তার গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে নুসরাতের শরীরের ৭৫ শতাংশ পুড়ে যায়। বর্তমানে ওই মাদরাসাছাত্রীকে ঢামেকের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন। তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।এর আগে গত ২৭ এপ্রিল ওই ছাত্রীকে নিজ কক্ষে নিয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনার পর থেকে তিনি কারাগারে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন।

এ ঘটনায় রোববার থেকে আগামী ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত মাদরাসার স্বাভাবিক কার্যক্রম ও অনির্দিষ্টকালের জন্য হোস্টেল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ।এদিকে মাদরাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনার তিনদিন পর থানায় মামলা হয়। সোমবার (৮ এপ্রিল) বিকালে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলাটি করেন ভিকটিমের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান। মামলার সংশোধিত এজাহারে অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে প্রধান আসামি করা হয়। এছাড়া মুখোশধারী চারজন এবং তাদের সহযোগীদের আসামি করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত মোট নয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares