ছাত্রীকে ডাস্টার দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে শিক্ষক |

সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.voiceofbarishal@gmail.com অথবা hmhalelbsl@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩
সংবাদ শিরোনাম:
ঘুমের মধ্যে কেটে নিল গৃহবধূর কান! বরিশালে সাবেক সংসদ সদস্যের বাড়িতে হামলা পিরোজপুরে ভুয়া স্কুল ঘর দেখিয়ে বেতন-ভাতা হাতিয়ে নিচ্ছেন চার শিক্ষক ঝালকাঠিতে তরুণীকে বিয়ে করে জামিন পেলেন ধর্ষক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা পটুয়াখালীতে স্বামীর পান আনতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ৩ সন্তানের মা বাবুগঞ্জে স্কুল ছাত্রের আত্মহত্যাকে হত্যা দাবি করে অর্থ বানিজ্য ও হয়রানির অভিযোগ! পটুয়াখালীতে প্রচারণা শেষে বাড়ি ফেরার পথে কাউন্সিলর প্রার্থীকে গণধর্ষণ বানারীপাড়া ছাত্রলীগ নেতা উজ্জ্বলের মনোনয়নপত্র দাখিল কলাপাড়া পৌর নির্বাচন=২০২১ মেয়র পদে ৪ জন সাধারন কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল




ছাত্রীকে ডাস্টার দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে শিক্ষক

ছাত্রীকে ডাস্টার দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে শিক্ষক




এইচ এম হেলাল: সাময়িক পরীক্ষার মূল্যায়ন খাতায় নম্বর কম দেয়ার কারণ জানতে চাওয়ার অপরাধে বরিশাল নগরীতে নবম শ্রেনীর এক ছাত্রী পিটিয়ে আহত করেছে শিক্ষক। মারধরের ফলে ওই শিক্ষার্থী অচেতন হয়ে পড়লে প্রায় আধাঘন্টা পর তাকে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে যায় শিক্ষকরা। মেরুদন্ডে আঘাত পাওয়া চিকিৎসকরা তাকে হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেয়। ঘটনার দুইদিন পর ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন আহতের পরিবার। অভিযোগ তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করলেও তা কতটুকু কার্যকর হবে তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন আহতের অভিভাবক।

এদিকে ওই ছাত্রী আহত হওয়ার পর প্রধান শিক্ষকের ব্যাঙাত্মক মন্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকরা। আহত সূত্রে জানা যায়, নগরীর ব্যাপ্টিষ্ট মিশন স্কুলে গত সোমবার পরীক্ষার মূল্যায়ন খাতা দেখানো হয় ক্লাশে। এ সময় নবম শ্রেনীর ছাত্রী লামিয়া পরীক্ষায় কম নাম্বার পাওয়ায় শিক্ষকের কাছে কারণ জানতে চায় তার সহপাঠী তানিয়া। এতে তানিয়ার উপর ক্ষীপ্ত হয়ে শিক্ষক মোসাদ্দেক ডাস্টার দিয়ে মারধর করে। ডাস্টারের আঘাতে তানিয়া ক্লাশেই অচেতন হয়ে পড়ে। এ ঘটনার প্রায় ৩০ মিনিট পরেও তার জ্ঞান না ফেরায় শিক্ষকরা তাকে দ্রুত শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে যায়। দায়িত্বরত চিকিৎসক তানিয়ার মের“দণ্ডে আঘাতের কারণে হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেন। গতকাল বুধবার তানিয়াকে হাসপাতাল থেকে বাসায় নিয়ে আসেন তার অভিভাবক। এদিকে এ ঘটনায় শিক্ষক মোসাদ্দেক’র বির“দ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে তানিয়ার পিতা কালাম সর্দার। অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে ব্যাপ্টিষ্ট মিশন স্কুলের প্রধান শিক্ষক মেরী সুজনী সমদ্দার বলেন, অভিযোগ তদন্তে একজন ছাত্রীসহ তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আগামীকাল (অর্থাৎ আজ বৃহস্পতিবার) প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। এদিকে আহত তানিয়ার পিতা কালাম সর্দার বলেন, আমার মেয়ে অপরাধ করলে আমাদেরকে জানানো যেতো। শিক্ষার্থী পেটানোর ব্যাপারে সরকারি বিধিনিষেধ থাকলেও একজন শিক্ষক কিভাবে আমার কিশোরী মেয়েকে মারধর করলো। এদিকে তানিয়া আহত হওয়ার পর খবর পেয়ে স্কুল প্রধান মেরী সুজনী সমদ্দার ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যাঙাত্মক মন্তব্য করেছে বলে জানিয়েছে তানিয়ার সহপাঠীরা। বিষয়টি স্বীকার করে প্রধান শিক্ষক বলেন, পরিস্থিতি ঘোলাটে হওয়ায় এরকমটা বলেছেন তিনি। তবে একজন প্রধান শিক্ষক এ ধরণের ব্যাঙাত্মক মন্তব্য করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন একাধিক অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares