তালতলীতে ভেঙে পড়ল মুজিববর্ষের উপহারের ঘর |

শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:০২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.voiceofbarishal@gmail.com অথবা hmhalelbsl@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩
সংবাদ শিরোনাম:
স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলো দ্রুত গ্রহণের দাবিতে ববি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন নগরীর চহঠা থেকে বিপুল পরিমান ইয়াবা ও গাজাসহ আটক ১ পুলিশকে সর্বক্ষেত্রে দায়িত্বশীল হতে হবে: বরিশাল ডিআইজি বরিশালে পরীক্ষা নেয়া সহ একদফা দাবীতে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ বিএম কলেজ শিক্ষার্থীরা বরিশালে খালি ট্রলি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে, প্রাণ গেল হেলপারের রাজাপুরে রাস্তা রেখে ইউএনও বহনকারী গাড়ি ময়লা পানিতে পটুয়াখালীর দশমিনায় বৃদ্ধকে বিয়ে না করায় বাড়ি ছাড়া চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী যেখানেই অসহায় মানুষ সেখানেই মানবিক পুলিশ জাহিদ ঝালকাঠিতে এক দোকান কর্মচারীকে হত্যার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন কলাপাড়ায় সাবেক এমপি পুত্রের বিরুদ্ধে জমি দখল করে মাছের ঘের করার অভিযোগ




তালতলীতে ভেঙে পড়ল মুজিববর্ষের উপহারের ঘর

তালতলীতে ভেঙে পড়ল মুজিববর্ষের উপহারের ঘর

তালতলীতে ভেঙে পড়ল মুজিববর্ষের উপহারের ঘর




বরগুনা প্রতিনিধি॥ বরগুনার তালতলীতে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া দুর্যোগ সহনশীল ঘর নির্মাণের কয়েক ঘণ্টা পরই ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার করইবারীয়া ইউনিয়নের বেহেলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

 

বেহেলা গ্রামের মৃত রাজেস্বরের স্ত্রী উরমিলা (৬৫) ভূমিহীন ও গৃহহীন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের একটি পাকা ঘর পেয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরে চলছে তার সে ঘর নির্মাণের কাজ। কিন্তু কাজ শেষ হতে না হতেই ভেঙে পড়েছে ঘরের একটি দেয়াল।

 

 

রাজেস্বরের স্ত্রী উরমিলা জানান, ঘরের দেয়ালটি ভেঙ্গে পড়ার কিছুক্ষণ আগে তিনি ঘর থেকে বাহিরে বের হয়েছিলেন। নয়তো সরকারের দেয়া এ ঘরই তার প্রাণ যেত।

 

 

একাধিক স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, সরকারের দেওয়া ঘরের জন্য ঠিকাদাররা নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করেছে, পরিমাণ মতো সিমেন্ট ব্যবহার না করে ঘর নির্মাণ করেছে।

 

 

এ ঘটনায় উপজেলা পিআইও কর্মকর্তা রুনু বেগম বলেন, এ বিষয়ে আমি আপনাদের কিছু বলতে পারবনা, ইউএনও স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

 

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। জেনে আপনাকে অবগত করব।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

Shares
© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD
Shares