প্রতি আসনের বিপরীতে বরিশালে মনোনয়ন যুদ্ধে ২৩ নেতা Latest Update News of Bangladesh

শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
Latest Update Bangla News 24/7 আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ভয়েস অব বরিশালকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] অথবা [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।*** প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বরিশাল বিভাগের সমস্ত জেলা,উপজেলা,বরিশাল মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ড ও ক্যাম্পাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! ফোন: ০১৭৬৩৬৫৩২৮৩




প্রতি আসনের বিপরীতে বরিশালে মনোনয়ন যুদ্ধে ২৩ নেতা

প্রতি আসনের বিপরীতে বরিশালে মনোনয়ন যুদ্ধে ২৩ নেতা




নিজস্ব প্রতিবেদক :বরিশালের ২১ টি সংসদীয় আসনে প্রতি আসনের বিপরীতে গড়ে ২৩ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। ফলে বড় দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপি গোপন জড়িপের মাধ্যমে চুলচেরা বিশ্লেষন করছে প্রার্থী বাছাইয়ে। অবশ্য প্রার্থী বাছাইয়ে ক্ষমতাসীন আ’লীগের চেয়ে বিএনপি রয়েছে সুবিধাজনক অবস্থায়। যদিও দুই দলের হাইকমান্ড এটাকে নেতিবাচক দিক হিসেবে বিবেচনা করছে। তবে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টরা বলছেন প্রার্থীদের মধ্য থেকে কেউ কেউ রাজনীতির মারপ্যাচ খেলছেন।

জাতীয় নির্বাচনে দক্ষিণের ২১টি আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী হতে চান দু’দলের পাঁচ শতাধিক নেতা। বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার এসব আসনে আওয়ামী লীগের তিন শতাধিক এবং বিএনপির দুই শতাধিক নেতা দলীয় মনোনয়নপত্র কিনেছেন।
গত সোমবার সন্ধ্যায় দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শেষ করে আওয়ামী লীগ। বরিশাল বিভাগের আবেদনপত্র বিক্রির দায়িত্বে থাকা টিমের নেতা ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল হক মঞ্জুর দেয়া তথ্যানুযায়ী, বিভাগের ২১টি আসনে বিক্রি হয়েছে ৩৩০টি দলীয় মনোনয়নপত্র।
এর মধ্যে সর্বাধিক ৫২টি ফরম বিক্রি হয়েছে বরগুনা-১ আসনে। সবচেয়ে কম ১টি ফরম বিক্রি হয়েছে বর্তমানে পূর্ণ মন্ত্রীর মর্যাদায় থাকা সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর নির্বাচনী এলাকা বরিশাল-১ আসনে। তার নামেই কেনা হয়েছে এই ফরম।
এছাড়া শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর নির্বাচনী এলাকা ঝালকাঠি-২’এ ৫টি এবং বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের নির্বাচনী এলাকা ভোলা-১’এ ৫টি ফরম বিক্রি হয়েছে। বরিশাল-৬ আসনে বিক্রি হওয়া ১৬টি ফরমের মধ্যে ৩টি কিনেছেন ৩ সহোদর ভাই আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য নুরুল হক অসীম, ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল হক মঞ্জু ও এনামুল হক আবীর। এছাড়া বরগুনা-২’এ ৩৪টি, পটুয়াখালী-১’এ ১৪টি, পটুয়াখালী-২’এ ৯টি, পটুয়াখালী-৩’এ ২২টি, পটুয়াখালী-৪’এ ৩২টি, ভোলা-২’এ ১১টি, ভোলা-৩’এ ১১টি, ভোলা-৪’এ ৪টি, বরিশাল-২’এ ২১টি, বরিশাল-৩’এ ১৪টি, বরিশাল-৪’এ ৮টি, বরিশাল-৫’এ ১২টি, ঝালকাঠি-১’এ ১০টি, পিরোজপুর-১’এ ১৫টি, পিরোজপুর-২’এ ১৫টি এবং পিরোজপুর-৩’এ ১৯টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়েছে।

বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জানান, কোনো নির্বাচনে বরিশাল বিভাগে এত বেশি দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি হওয়ার ঘটনা এবারই প্রথম। তারা জানান, এভাবে বিপুল সংখ্যক আবেদন ফরম বিক্রি হওয়ার পেছনে অন্য রাজনীতিও রয়েছে। মনোনয়ন বোর্ডে গিয়ে পছন্দের প্রার্থীর জন্য লড়াই থেকে সরে যাওয়ার কথা বলে তার পক্ষে বোর্ডের সামনে জনসমর্থনের জানান দেয়ার কৌশলও রয়েছে এক্ষেত্রে।
এর ভিন্ন ব্যাখ্যা দিয়ে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর বলেন, এখানকার দলীয় নেতাকর্মীরা যে আর বর্তমান এমপি ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে চায় না তার জানান দিতেই হয়তো ৫২টি আবেদন ফরম কেনা হয়েছে। যারা এসব আবেদন ফরম কিনেছে তারা প্রায় সবাই দলের বিভিন্ন পর্যায়ের পদধারী নেতা। এরা হয়তো মনোনয়ন বোর্ডে জননেত্রীর সামনে শম্ভুর মনোনয়নের বিপক্ষে কথা বলবেন। এটাও একধরনের প্রতিবাদ।
তবে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস বলেন, বিষয়টিকে পজিটিভ হিসেবেও দেখা যেতে পারে। জনসমর্থন প্রশ্নে আওয়ামী লীগ এখন এতটাই ভালো অবস্থানে যে মনোনয়ন পেলে জয়ী হতে খুব একটা কষ্ট হবে না।

আওয়ামী লীগের মতো বিএনপিতেও মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বিপুলসংখ্যক নেতা। বিএনপির বরিশাল অঞ্চলের আবেদন ফরম বিক্রির দায়িত্বে থাকা দলটির কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক রওনাকুল ইসলাম টিপুর দেয়া তথ্যানুযায়ী, বুধবার বিক্রির শেষ দিন পর্যন্ত বিভাগের ২১টি আসনে দুই শতাধিক নেতা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।
আসনওয়ারি ঠিক কতগুলো ফরম বিক্রি হয়েছে সে ব্যাপারে স্পষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া না গেলেও প্রতিটি আসনে গড়ে প্রায় ১০টি করে ফরম বিক্রি হওয়ার কথা জানান টিপু।
জানা গেছে, বরিশাল-২ আসনে এস সরফুদ্দিন সরদার সান্টুর পাশাপাশি মনোনয়নপত্র কিনেছেন একসময়কার জায়ান্ট নেতা সাবেক হুইপ শহিদুল হক জামাল। ওয়ান ইলেভেনে সংস্কারে গিয়ে দলের মূলধারা থেকে ছিটকে পড়া জামাল প্রায় ১০ বছর ধরেই রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় ছিলেন। একইভাবে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বরিশাল-৪ আসনের সাবেক এমপি সাবেক অর্থ প্রতিমন্ত্রী শাহ মো. আবুল হোসাইন। সাবেক এমপি জহিরুদ্দিন স্বপন বরিশাল-১ আসনে, সাবেক এমপি নূরুল ইসলাম মনি বরগুনা-২ আসনে এবং সাবেক এমপি শহিদুল আলম তালুকদার পটুয়াখালী-২ আসনে আবেদন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এছাড়া বর্তমানে জেলে থাকা বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক নান্নুর জন্যও কেনা হয়েছে ফরম। বরিশাল বিভাগের দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি বিলকিস জাহান শিরিন বরিশাল-৫ ও বরিশাল-৪ আসনে ফরম সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গেছে।

 

এ ব্যাপারে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সাবেক এমপি মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, টানা ১০ বছর ক্ষমতার বাইরে বিএনপি। তাছাড়া এবারের নির্বাচনটাও মূলত আন্দোলনেরই একটা অংশ। নির্বাচনে অংশগ্রহণের এই প্রক্রিয়া এবং বিএনপির পক্ষে যে গণজাগরণ তার সামান্য একটা নমুনা এই শত শত নেতার মনোনয়নপত্র ক্রয়। এ থেকেই প্রমাণ হয় যে দেশে যদি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় তাহলে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েই সরকার গঠন করবে বিএনপি।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *










Facebook

© ভয়েস অব বরিশাল কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed BY: AMS IT BD